বাংলাদেশে আসা হয় শাকিব খানকে বিয়ে করতে : কফি

বাংলাদেশে আসা হয় শাকিব খানকে বিয়ে করতে।

অবাক হওয়ার কিছু নেই! চলুন জেনে নেই বিস্তারিত।

মার্কিন অভিনেত্রী কোর্টনি কফির সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন শাকিব খান। চলছে সুটিং শাকিব খান অভিনীত সিনেমা রাজকুমার সিনেমার। আর এই ছবিতে তার নায়কা হিসেবে কাজ করছেন মার্কিন অভিনেত্রী কফি।

শুটিং শুরুর দিন হিসেবে ধার্য করা করেন ১০ ডিসেম্বর। এই চলচ্চিত্রটির প্রযোজক আরশাদ আদনান। অভিনেত্রী কফি তার নিজের অংশের সুটিং শেষে আমেরিকায় ফিরে গেছেন। কিছুদিন পর শাকিবও যাবেন দেশটিতে। এর আগে শাকিবকে নিয়ে সামাজিকমাধ্যমে মন্তব্য করেছেন কোর্টনি কফি। শাকিবকে বাংলাদেশের টম ক্রোজ বলেছেন কফি।
এক ভিডিওতে কফি বলেন, আমি রাজকুমার ছবির নায়িকা আমি কোর্টনি কফি। বাংলাদেশে যাওয়ার জন্য যখন প্লেনে উঠেছিলাম, বারবার মনে হচ্ছিল— নতুন এক অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে চলেছি। আমি যেখানে সুটিং করেছি ওখানে সব কিছু খুব সুন্দর ছিল। আমি যতটুকু ভেবেছিলাম ঠিক তার থেকেও বেশি সুন্দর।

তিনি আরো বলেন, অন্যান্য দেশে হইতো আইফেল টাওয়ার আছে বিখ্যাত অনেক কিছু আছে। তবে বাংলাদেশের মানুষের মন অনেক বড়। আমি মনে করি বাংলাদেশের মানুষ তাদের হৃদয় দিয়ে দেশটিকে মহৎ রাষ্ট্র হিসেবে বনিয়েছে। আমি আগে অনেক বাংলাদেশের মানুষের আপ্যায়নের সুনাম শুনেছি। আমি যা শুনেছি তার চেয়ে বেশি পেয়েছি। এখানকার মানুষ খুব সহজ সরল ও অবিশ্বাস্য রকম দয়াবান।

কফি আরো বলেন, বাংলা সিনেমার ভক্তরা তাদের চলচ্চিত্রকে ভালোবেসে গ্রহণ করে । তারা অনেক বেশি উৎসাহিত করে। আমি চারপাশে ঘুরে ঘুরে দেখেছি, এখানে অনেক সিনেমাপ্রেমী মানুষ আছে, যারা আমাকে বিস্মিত করেছে। এটাও বুঝতে পেরেছি যে, শাকিবের অনেক ভক্ত আছেন এখানে। যারা শাকিবকে অনেক ভালোবাসে শ্রদ্ধা করে।

শাকিব খানের প্রসংশা করে কফি বলেন, শাকিব বাংলাদেশের জন্য টম ক্রোজের মতোই জনপ্রিয়। শাকিব খান খুবই প্রফেশনাল, কাজে মনোযোগী, অভিনেতা হিসেবে একেবারে পারফেক্ট। শুটিংয়ে তিনি খুব মজার মানুষ ছিলেন। তার সঙ্গে পুরো কাজের অভিজ্ঞতা আমার দারুণ লেগেছে।

কফি বলেন রাজকুমার ছবিতে আমার চরিত্র অনেক খারাপ স্বভাবের। এই চরিত্রটিতে বাংলাদেশে আসা হয় শাকিব খানকে বিয়ে করতে এবং পরে তাকে আমেরিকায় নিয়ে যেতে। পরে কফি বলেন, বাকি অংশ দর্শকের জন্য চমক হিসেবে থাকুক।

 

Leave a Comment