কষ্টে আছেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবল তারকা নেইমার | Neymar is in trouble

দীর্ঘ ১১১ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো অবনমন হলো পেলে নেইমারদের শৈশবের ক্লাব সান্তোস এফসে। এমন হার মানতে পারছেন না ক্লাবের সমর্থকরা। ব্রাজিলের রাস্তায় থাকা গাড়ি পুড়িয়ে নিজেদের খোব মিটাচ্ছেন ফুটবল প্রেমিরা। সান্তুসের রেলিগেশনে কষ্ট পেয়েছেন নেইমার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন সান্তোস সব সময় সান্তোসই থাকবে তারা আবারও হাসবে।

কষ্টে আছেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবল তারকা নেইমার। মনের ভিতরে থাকা আগুন, শহরের গাড়ি পুড়িয়ে এভাবেই নেভাচ্ছেন সমর্থকেরা। ম্যাচ হারারপর সান্তোসের মাঠে ভিলা বেলমিরোর পাশে পার্কিং করা গাড়িগুলোতে আগুন দিয়েই নিজেদের খুব কমানোর চেষ্টায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন ক্লাবটির সমর্থকরা।

মূলত দীর্ঘ ১১১ বছরের ইতিহাসে যা ঘটেনি সেটিরই সাক্ষী হয়েছেন ব্রাজিলের ফুটবল ভক্তরা। ব্রাজিলের শীর্ষ লীগ সিরিয়া থেকে সিরিবি তে প্রথমবারের মতো অবনমন হলো পেলে নেইমারদের ক্লাব সান্তোস এপসের।

নিজেদের শেষ ম্যাচে ফুর্তাল এজেব এর বিপক্ষে জিতলেই রেলিগেশন এড়াতে পারতো সান্তোস কিন্তু ঘরের মাঠে ২-১ গোলে হেরে বসে তারা। এই হারের ফলে নিজেদের ইতিহাস রক্ষা করতে পারেনি সান্তোস। ২০ দলের লিগে ১৭ তম হয়ে অবনমন হয়েছে সান্তোসের তাতেই ক্ষুব্ধ হয়ে গাড়ি পুড়িয়েছেন সমর্থকরা।

সান্তোসে খেলেই তারকা হয়েছেন পেলে নেইমাররা শৈশবের ক্লাবের এমন দুর্দশা দেখে ব্যথিত হয়েছেন নেইমার। তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন সান্তোস সব সময় সান্তোসই থাকবে। তারা আবারও হাসবে।

বেঁচে থাকলে নিশ্চয়ই নেইমারের মত কষ্ট পেতেন কিংবদন্তি ফুটবলার পেলে। গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর মারা যান তিনবারের বিশ্বকাপ জয়ী এই মহাতারকা পেলে।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। তার মৃত্যুর এক বছর পূর্ণ না হতেই সান্তোসের আকাশ ছেয়ে গেল কালো মেঘে, একই সাথে ব্রাজিলের জাতীয় দলও নেই নিজেদের চিরচেনা ছন্দে। সব মিলিয়ে ব্রাজিল ফুটবলের এই দুঃসময় দেখতে হলো না পেলেকে।

Leave a Comment