তিশাকে কি ব্ল্যাকমেইল করা হয়েছে | Tisha Is Blackmailed

রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের গভর্নিং বডির দাতা সদস্য খন্দকার মুশতাক আহমেদ এবং কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী সিনথিয়া ইসলাম তিশা এবারের বইমেলায় নিজেদের বই প্রকাশ করে নতুন আলোচনায় জড়ালেন পাশাপাশি তাদের বিয়ে নিয়েও চলছে সমালোচনা।

১৮ বছর বয়সী তিশা বিয়ে করেন ৬০ বছর বয়সী খন্দকার মুশতাককে। এই বিয়ে এখনো মেনে নেয়নি তিশার পরিবার। তাছাড়া এই বিয়ে আদালত পর্যন্ত গড়ায় আর এসব কারণে সব মহলে এই অসম দম্পতির বিরুদ্ধে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।

তিশাকে কি ব্ল্যাকমেইল করা হয়েছে! তিশার বাবা সাইফুল ইসলাম মুস্তাকের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন। তিনি অভিযোগ করেন, ব্ল্যাকমেইলের মাধ্যমেই তিশাকে বিয়ে করেছেন মোশতাক। এমতাবস্থায় তিনি তার মেয়েকে ফিরে আসতে বলেন।

সম্প্রতি ফেসবুক লাইভে হাজির হয়েছেন তিশার বাবা সাইফুল ইসলাম। তিনি বললেন, আমি মুশতাকের ছায়া দেখতে চাই না। মুশতাক নামটা শুনলেই আমার ওজু নষ্ট হয়ে যায়। আম্মু, তুমি আমার কাছে ফিরে আসো। যদি কোন কারণে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়, এটিকে আবার সেটি আবার লাইনে তুলে এগিয়ে যাওয়া যায়। তুমি যদি আমার কাছে ফিরে আসো, আমি মোশতাকের বিরুদ্ধে মামলা করব।

তিশার বাবা আরো বলেন, একটা মেয়ে কতটা জিম্মি থাকলে বাবা-মায়ের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারে। তিশাকে কঠোর রেস্ট্রিকসনে রাখে, এমনকি তাকে তার সেল ফোনে কথা বলতে দেওয়া হয় না। মুশতাক তিশাকে কথা বলতে দিলেও সে পাশে বসে থাকে। একদিন তিশার মা তিশাকে বলে, তুমি যদি মুশতাকের সাথেই থাকো, তাহলে তুমার জীবন ধ্বংস করে দেবে মুশতাক!

জবাবে তিশা বলেন, মা! মুশতাকের কাছে আমার অনেক অশ্লীল ছবি আছে। ছবিগুলো দিলে মুশতাককে লাথি দিয়ে চলে আসতাম।

প্রসঙ্গত, সিনথিয়া ইসলাম তিশা ও খন্দকার মোশতাক আহমেদের অসম বয়সের বিয়ে নিয়ে দেশজুড়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে। এমনকি ঢাকার একুশে বইমেলায় গিয়েও হয়রানির শিকার হন এই দম্পতি। ১৮ বছর বয়সী তিশা বিয়ে করেন ৬০ বছর বয়সী খন্দকার মুশতাককে। এই বিয়ে এখনো মেনে নেয়নি তিশার পরিবার। তাছাড়া এই বিয়ে আদালত পর্যন্ত গড়ায়। মামলাটি এখনো বিচারাধীন।

All Bangla Newspaper or News Free to read free from same place and know more about them All Newspaper Bangla best.

Leave a Comment